ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া ? ঘরে প্রবেশ করার দোয়া

ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া ? ঘরে প্রবেশ করার দোয়া‎

আসসালামুআলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ আশা করি বন্ধুরা আপনারা সবাই ভাল আছেন, তো বন্ধুরা আজকে আমার এই আর্টিকেলে আপনাদের বলব ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া ঘরে প্রবেশ করার দোয়া

ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া

ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া ঘরে প্রবেশ করার দোয়া

দৈনিন্দন জীবনে রাসূল স: এর একটা আমল ছিল ঘরে প্রবেশ ও ঘর হইতে বাইরে যাওয়ার সময় দোয়া। এই ছোট্ট সুন্নাতের আমল আমাদের মাঝে নাই। এটা শুধু সুন্নাত নয়, বরং ফযিলাতেরও। এতে আমাদের নিরাপত্তা ও বরকত। জাবের ইবেনে আব্দুল্লাহ রা. হইতে বর্ণিত, তিনি বলেন, নবী করীম (স:) কে বলিতে শুনেয়াছি যে,

“إِذَا دَخَلَ الرَّجُلُ بَيْتَهُ فَذَكَرَ اللَّهَ عِنْدَ دُخُولِهِ وَعِنْدَ طَعَامِهِ قَالَ الشَّيْطَانُ لاَ مَبِيتَ لَكُمْ وَلاَ عَشَاءَ وَإِذَا دَخَلَ فَلَمْ يَذْكُرِ اللَّهَ عِنْدَ دُخُولِهِ قَالَ الشَّيْطَانُ أَدْرَكْتُمُ الْمَبِيتَ فَإِذَا لَمْ يَذْكُرِ اللَّهَ عِنْدَ طَعَامِهِ قَالَ أَدْرَكْتُمُ الْمَبِيتَ وَالْعَشَاءَ.” (رواه مسلم)

“যখন মানুষ নিজের ঘরে প্রবেশ করে এবং প্রবেশের সময়ও খাওয়ার সময় আল্লাহ তায়ালার যিকর করে তখন শয়তান (তাহার সঙ্গীদেরকে) বলে, এখানে আমাদের জন্য না রাত্রিযাপনের জায়গা আছে, না রাত্রের খাবার আছে। আরযখন মানুষ ঘরে প্রবেশ করে এবং প্রবেশের সময় আল্লাহতায়ালার যিকর করে না, তখন শয়তান (তাহার সঙ্গীদেরকে) বলে, এখানে তোমারা রাত্রিযাপনের জায়গা আছে পেয়ে গিয়েছো। আর যখন খাওয়ার সময়ও আল্লাহতায়ালার যিকর করে না, তখন শয়তান (তাহার সঙ্গীদেরকে) বলে, এখানে তোমরা রাত্রিযাপনের জায়গা ও রাত্রের খাবারও পেয়ে গিয়েছে।” (সহীহ মুসলিম)

অন্য বর্ণনায় আছে, যখন দোয়া পড়ে ঘর থেকে বের হয়, তখনতাহাকে বলা হয় (অর্থাৎ ফেরেশতারা বলে) তোমার কাজ সম্পাদন করিয়া দেওয়া হইয়াছে এবং তোমাকে সমস্ত অকল্যাণ হইতে হেফাজত করা হইয়াছে। শয়তান (ব্যর্থ হইয়া) তাহার নিকট হইতে দূর হইয়া যায়। অন্য আরেক বর্ণনায় আছে, শয়তান তাহার নিকট হইতে দূর হইয়া যায়, অপর এক শয়তান প্রথম শয়তানকে বলে, তুমি ঐ ব্যক্তিকে কিভাবে আয়ত্ত্বে নিতে পার, যাহাকে পথ দেখাইয়া দেওয়া হইয়াছে, যাহার কাজ সম্পাদন করিয়া দেওয়া হইয়াছে এবং তাহার হেফাজত করা হইয়াছে। (হাদিস সহীহ/আবুদাউদ ও তিরমিযী, বর্ণনায় আনাস রা.)

ঘরে প্রবেশ করার দোয়া

1. اللَّهُمَّ إِنِّي أَسْأَلُكَ خَيْرَ الْمَوْلَجِ وَخَيْرَ الْمَخْرَجِ, بِسْمِ اللَّهِ وَلَجْنَا بِسْمِ اللَّهِ خَرَجْنَا وَعَلَى اللَّهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا.

(حديث ضعيف/ رواه ابو داود عن ابي مالك الاشعري رضيالله عنه)

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নি আস আলুকা খায়রাল মাওলাজি ওয়াখায়রাল মাখরাজি, বিসমিল্লাহি ওয়ালাজনাবিসমিল্লাহি খারাজনা ওয়া আলাল্লাহি রাব্বানা তাওয়াক্কালনা।

অর্থ: হে আল্লাহ, আমি আপনার নিকট ঘরে প্রবেশ করা ও ঘর হইতে বাহির হওয়ার কল্যাণ প্রার্থনা করিতেছি। আমরা আল্লাহ তায়ালারই নামে ঘরে প্রবেশ করি এবং আল্লাহ তায়ালারই নামে ঘর হইতে বাহির হই, এবং আমাদের রব আল্লাহর উপরই আমরা ভরসা করি।

2. السَّلاَمُ عَلَيْنَا وَعَلَى عَبَّادِ اللَّهِ الصَّالِحِينَ / السَّلاَمُ عَلَيْكُمْ وَرَحْمَةُ اللهِ وَبَرَكَاتُهُ.

(حديث صحيح/ رواه الترمذي عن انس بن مالك رضي الله عنه)

উচ্চারণ: আসসালামু আলাইনা ওয়া আলা ইবাদিল্লাহিস সালিহীন, আসসলামু আলাইকুম ওয়ারাহ মাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ।

অর্থ: আমাদের উপর এবং নেক বান্দাদের উপর শান্তি বর্ষিক হোক। তোমাদের উপর শান্তি, আল্লাহর রহমত ও বরকত অবতীর্ণ হোক।

ঘর থেকে বের হওয়ার দোয়া

1. بِسمِ اللهِ تَوَكَّلْتُ عَلَى اللهِ، لاَ حَولَ وَلاَ قُوَّةَ إلاَّ باللهِ.

يقال له كقيت ووقيت وتنحي عنه الشيطان. وفي رواية فتتنحي له الشياطين, فيقول شيطان آخر كيف لك برجل قد هدي وكفي ووقي. (حديث صحيح/ رواه ابو داود والترمذي عن انس بن مالك رضي الله عنه)

উচ্চারণ: বিসমিল্লাহি তাওয়াক্বালতু আলাল্লাহ, লা হাও লা ওয়ালা কুওয়্যাতা ইল্লাবিল্লাহ।

অর্থ: আমি আল্লাহর নামে বাহির হইতেছি, আল্লাহর উপরই আমার ভরসা, কোন কল্যাণ হাসিল করা এবং কোন অকল্যাণ হইতে বাঁচার ব্যাপারে সফলকাম হওয়া একমাত্র আল্লাহর হুকুমে সম্ভব হইতে পারে।

2. اللَّهُمَّ إِنِّي أعُوذُ بِكَ أنْ أضِلَّ أَوْأُضَلَّ، أَوْ أَزِلَّ أَوْ أُزَلَّ، أَوْ أظْلِمَ أَوْ أُظْلَمَ، أَوْ أجْهَلَ أَوْيُجْهَلَ عَلَيَّ.

(حديث صحيح/ رواه ابو داود و الترمذي عن ام سلمة رضي الله عنها)

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযুবিকা আন আদিল্লা আও উদাল, আও আযিল্লা আও উযাল, আও আযলিমা আও উযলাম, আও আজহালা আও উযহালা আলাইয়া।

অর্থ: হে আল্লাহ, আমি আপনার নিকট এই ব্যাপারে পানাহচাইতেছি যে, আমি পথভ্রষ্ট হইয়া যাই অথবা আমাকে পথভ্রষ্ট করা হয়; অথবা সরল পথ হইতে পদাঙ্খলিত হই আথবা আমাকে পদাঙ্খলিত করা হয়; অথবা আমি জুলুম করি অথবা আমার উপর জুলুম করা হয়; অথবা আমি অজ্ঞাতাবশতঃ খারাপ আচরণ করি অথবা আমার সহিত অজ্ঞাতাবশতঃ খারাপ আচরণ করা হয়।

3. آيَةَ الْكُرْ سِيْ.

(حديت ضعيف/ تخريج التاج الجامع)

আয়াতুল কুরসী পাঠ করা।

4. أَسْتَوْدِعُكُمُ اللهَ الَّذِى لاَ تَضِيْعُ وَدَائِعُهُ.

(حديث صحيح/ رواه احمد و ابن ماجة عن ابي هريرة رضي الله عنه)

উচ্চারণ: আসতাওদিয়ুকুমুল্লা হাল্লাযি লা তাদিয়ু ওয়াদিয়ু।

অর্থ: আমি তোমাদিগকে সেই আল্লাহর হাতে সোর্পদ করিতেছি, যার নিকট সোর্পদকৃত আমানত কখনো বিনষ্ট হয়না।

আরো পড়ুন

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.